বাংলাদেশে জনসম্পৃক্ত উন্নয়ন কার্যক্রম পরিদর্শন করে অভিভূত ও অনুপ্রাণিত দি হাঙ্গার প্রজেক্ট-এর গ্লোবাল প্রেসিডেন্ট

DSC_0012দি হাঙ্গার প্রজেক্ট-এর গ্লোবাল প্রেসিডেন্ট ও সিইও ওসা স্কোজস্ট্রোম ফেল্ট আসবেন- তাই সকাল থেকেই সংস্থার পুরো কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে (মোহাম্মদপুর, ঢাকা) যেন সাজসাজ রব। অতঃপর তিনি অন্যান্য আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দসহ এলেন বিকাল ৩.০০টায়। কার্যালয়ের প্রধান গেইট থেকেই তাঁদের ফুলেল শুভেচ্ছা দিয়ে স্বাগত জনায় ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গার-এর সদস্যরা। এরপর সংস্থার সভাকক্ষে সংক্ষিপ্ত মতবিনিময় সভায় ইয়ূথ সদস্যরা ছাড়াও উজ্জীবক ও নারীনেত্রীগণ গ্লোবাল প্রেসিডেন্ট-এর সাথে বিভিন্ন বিষয়ে মতবিনিময় করেন। প্রসঙ্গত, ১২ নভেম্বর, ২০১৪ বাংলাদেশের স্থানীয় সরকার বিশেষত ইউনিয়ন পরিষদের ব্যতিক্রমী জনসম্পৃক্ত কার্যক্রম সম্পর্কে অভিজ্ঞতা অর্জনের লক্ষ্যে ওসা স্কোজস্ট্রোম ফেল্ট-সহ আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ রাজধানী ঢাকায় অবতরণ করেন। অতিথিবৃন্দের মধ্যে ছিলেন ড. সাঈদা হামিদ- সদস্য, পরিকল্পনা কমিশন, ভারত ও সদস্য দি হাঙ্গার প্রজেক্ট গ্লোবাল বোর্ড এবং দি হাঙ্গার প্রজেক্ট-সুইডেন-এর কান্ট্রি ডিরেক্টর আশা লেন্ট্জ, উগান্ডার কান্ট্রি ডিরেক্টর ডেইজি ঔমোগাসু, গ্লোবাল হাঙ্গার প্রজেক্ট-এর কর্মকর্তা ব্রিজেট ব্যারি, সুপ্রিয়া বানাবালিকার, মেরী কেইট কস্টেলো, মেরী ওয়ালেনবার্গ প্রমুখ।

ঐদিন (১২ নভেম্বর) সন্ধায় আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দের সম্মানে দি হাঙ্গার প্রজেক্ট-এর উদ্যোগে রাজধানীর হোটেল সোনারগাঁয়ে এক নৈশভোজের আয়োজন করা হয়, যে অনুষ্ঠানে বিদেশি অতিথিবৃন্দ ছাড়াও তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা রাশেদা কে চৌধুরী, সুজন-সুশাসনের জন্য নাগরিক-এর কেন্দ্রীয় সভাপতি এম হাফিজউদ্দিন খান, সিটি ব্যাংক-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক রাশেদ মাকসুদসহ বেশ কয়েকজন বিশিষ্ট ব্যক্তি অংশগ্রহণ করেন। এছাড়া ১৩ নভেম্বর, ২০১৪ আমন্ত্রিত অতিথিগণ যোগ দেন দি হাঙ্গার প্রজেক্ট-বাংলাদেশ-এর ‘নারী নেতৃত্ব বিকাশ’ কর্মসূচির আওতাধীন বিকশিত নারী নেটওয়ার্ক-এর পঞ্চম জাতীয় সম্মেলনে, যে সম্মেলনটি সারাদেশের সহস্রাধিক বলিষ্ঠ নারীনেত্রীর অংশগ্রহণে ঢাকার কাকরাইলে অবস্থিত ইন্সিটিটিউট অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়।

8W6A5388১৩-১৫ নভেম্বর ২০১৪ ওসা স্কোজস্ট্রোম ফেল্ট-সহ আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ রংপুরের গঙ্গাচড়া উপজেলার গজঘন্টা, নোহালী এবং কোলকোন্দসহ কয়েকটি ইউনিয়নের অনুপ্রেরণামূলক কার্যক্রম পরিদর্শন করেন। প্রসঙ্গত, গঙ্গাচড়া উপজেলার উপরোক্ত ইউনিয়নগুলো স্থানীয় উন্নয়নের জন্য স্থানীয়ভাবে সেবা প্রদানের ক্ষেত্রে ইতোমধ্যে অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। পরিষদগুলো তাদের কার্যক্রম পরিচালনায় দি হাঙ্গার প্রজেক্ট-এর প্রশিক্ষণ সহায়তায় একদল প্রতিশ্র“তিশীল ও সমাজের প্রতি দায়বদ্ধ উজ্জীবক তথা কর্মীগোষ্ঠী সৃষ্টি করেছে, যারা উন্নয়ন কর্মকাণ্ড পরিচালনায় পরিষদকে বিভিন্নভাবে সহায়তা করছে। গ্রাম সভা, সামাজিক সভা ও ওয়ার্ডসভা আয়োজনের মাধ্যমে সমাজের সকল শ্রেণি ও পেশার মানুষের সমস্যার অগ্রাধিকার নির্ণয় ও তা সমাধানে জনগণকে সাথে নিয়ে কাজ করায় এ পরিষদগুলো জনঅংশগ্রহণের একটি শক্তিশালী প্লাটফর্মে পরিণত হয়েছে, যা দেখে গ্লোবাল প্রেসিডেন্ট ওসা স্কোজস্ট্রোম ফেল্ট ও আমন্ত্রিত বিদেশি অতিথিবৃন্দ অভিভূত হন। সুইডেন-এ জন্ম নেয়া দি হাঙ্গার প্রজেক্ট-এর গ্লোবাল প্রেসিডেন্ট তাঁর নিজ কর্মস্থল ও নিজ দেশে ফিরে এই অভিজ্ঞতাগুলো বিনিময় করবেন বলেও জানান। উল্লেখ্য, গঙ্গাচড়া উপজেলার ৯টি ইউনিয়নে ১,১৮৪ জন উজ্জীবক, ১৮৫ জন নারীনেত্রী এবং ৪৯৬ জন ইয়ূথ সদস্য রয়েছেন।

গংগাচড়া উপজেলায় উজ্জীবকগণ স্বাবলম্বী হওয়ার প্রত্যয়ে ৯১টি স্থানীয় সংগঠন গড়ে তুলেছেন, যে সংগঠনগুলো যুক্ত আছেন ১,৮০২ জন নারী এবং ১,২০০ জন পুরুষ। বর্তমানে তাদের মূলধন প্রায় ২৭ লাখ টাকা। স্থানীয় সংগঠনের মাধ্যমে নারীরা যৌথভাবে আত্মকর্মসংস্থানের উপায় খুঁজে পেয়েছেন। এলাকার বয়স্কদের স্বাক্ষরজ্ঞান করে গড়ে তুলছেন নিজেদের প্রচেষ্টায়। উজ্জীবকদের বিশেষত নারীদের উদ্যোগ ও প্রচেষ্টা গ্লোবাল প্রেসিডেন্টকে মুগ্ধ এবং অনুপ্রাণিত করেছে।

8W6A5407আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ গংগাচড়া সফরের শুরুর দিন ১৪ নভেম্বর, ২০১৪ বিকাল ৪.০০টায় আরডিআরএস-এর সভাকক্ষে প্রায় স্থানীয় উজ্জীবক, নারীনেত্রী ও ইয়ূথ লিডারদের সাথে মতবিনিময় সভায় মিলিত হন। এর আগে ফুলের মালা, রাখী বন্ধন, সঙ্গীত পরিবেশন, কপালে তিলক আঁকা প্রভৃতি কার্যক্রমের মধ্য দিয়ে তাদের বরণ করে নেন রংপুরের আত্মপ্রত্যয়ী প্রজন্ম। সভায় অনুভূতি ব্যক্ত করতে গিয়ে কন্যাশিশু এডভোকেসি ফোরাম-এর রংপুর জেলা কমিটির সভাপতি ফখরুল আনাম বেনজু বাল্যবিবাহমুক্ত এলাকা গড়ার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন। উজ্জীবক সাজ্জাদ বলেন, ‘উজ্জীবক প্রশিক্ষণের অনুপ্রেরণা নিয়ে এলাকার দরিদ্র শিশুদের নিয়ে বিদ্যালয় গড়ে তুলেছি।’ নারীনেত্রী নাহিদ আফরোজ শান্তা বলেন, ‘নারী নেতৃত্ব বিকাশ প্রশিক্ষণ আমাকে অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করতে শিখিয়েছে।’ ইয়ূথ লিডার খুশি বলেন, ‘সামাজিক দায়বদ্ধতার ভিত্তিতে যে কার্যক্রম আমরা পরিচালনা করছি তার অনুপ্রেরণা পেয়েছি ইয়ূথ লিডারশিপ প্রশিক্ষণ থেকে।’ গ্লোবাল প্রেসিডেন্ট তাঁর বক্তব্যে বলেন, ‘রংপুরের উজ্জীবক এবং ইয়ূথ সদস্যদের কার্যক্রমের বর্ণনা শুনে আমি অভিভূত। তাদের এ সফলতা আমার কাজের ক্ষেত্রে অনুপ্রেরণা হিসেবে কাজ করবে।’

১৫ নভেম্বর সকাল ৮.৩০টায় গ্লোবাল প্রতিনিধিদল রংপুর শহরের উপকণ্ঠে উজ্জীবক আকবর হোসেন-এর উদ্যোগে গড়ে উঠা নীলকন্ঠ নিউ মডেল স্কুল পরিদর্শন করেন। এই স্কুলে মূলত সমাজের দরিদ্র শ্রেণির শিশুরা লেখাপড়া করে। স্কুলের শিশুদের কবিতা আবৃত্তি ও গান পরিবেশন অতিথিদের মুগ্ধ করে। স্কুল প্রতিষ্ঠার উদ্দেশ্য বর্ণনাকালে আকবর হোসেন জানান, তিনি সামাজিক উদ্যোগ গ্রহণ করার প্রেরণা পেয়েছেন উজ্জীবক প্রশিক্ষণ থেকে। এলাকার দরিদ্র শিশুদের লেখাপড়া নিশ্চিত করার লক্ষ্যে প্রতিষ্ঠানটি সকলের সহযোগিতায় গড়ে তুলেছেন বলেও তিনি উল্লেখ করেন। গ্লোবাল প্রেসিডেন্ট শিক্ষার্থীদের সাথে কথা বলেন। তাদের অনুভূতি শোনেন। তিনি উজ্জীবক আকবর হোসেনের উদ্যোগের ভূয়সী প্রসংসা করেন।

8W6A5998সকাল ১০.৩০টায় গংগাচড়া উপজেলা পরিষদ মাঠে অনুষ্ঠিত হয় স্থানীয় সরকার প্রতিনিধি, উজ্জীবক, নারীনেত্রী ও ইয়ূথ সদস্যদের অভিজ্ঞতা বিনিময় সমাবেশ। সমাবেশে নারীনেত্রী নিলুফা বেগমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় উপজেলা চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান বাবলু বলেন, ‘সকলের সম্মিলিত প্রয়াসের মধ্য দিয়ে গংগাচড়াকে আমরা মডেল উপজেলায় পরিণত করব।’ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাঁর বক্তব্যে স্থানীয় সরকার ব্যবস্থা শক্তিশালী করতে দি হাঙ্গার প্রজেক্ট-এর ভূমিকার প্রসংসা করেন। বড়বিল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কাজল মোঃ নূরুন্নবী ইউনিয়নের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের বর্ণনা দিয়ে বলেন, ‘উজ্জীবক প্রশিক্ষণের শিক্ষা নিয়ে সকল কর্মকাণ্ডে আমরা জনগণকে সম্পৃক্ত করছি বলেই সফল হচ্ছি।’ জনগণ ও ইউনিয়ন পরিষদের যৌথ উদ্যোগে ইতোমধ্যে একটি অ্যাম্বুলেন্স ক্রয় করা হয়েছে বলেও জানান তিনি। কোলকোন্দ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ মমিনুর ইসলাম বলেন, ‘জনঅংশগ্রহণে আয়োজন সফল করতে পারার কারণে বাল্যবিবাহ ও স্যানিটেশনসহ অনেক সমস্যার সমাধানে আমরা সফল হয়েছি।’ গজঘন্টা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ লিয়াকত আলী উজ্জীবক ও ইউনিয়ন পরিষদের যৌথ উদ্যোগে আমরা কমিউনিটি ক্লিনিককে কার্যকর করেছি। বেতগাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নির্মলেন্দু গোস্বামী উজ্জীবক ও স্থানীয় নাগরিকদের সম্পৃক্ততায় কর আদায়ে সফলতার কথা বলেন। অন্য চেয়ারম্যানগণও তাদের নিজ ইউনিয়নে পরিচালিত বিভিন্ন সফলতার চিত্র তুলে ধরেন। সমাবেশে প্রত্যেক ইউনিয়ন থেকে একজন উজ্জীবক তাদের পুরো ইউনিয়নের উন্নয়ন কার্যক্রম তুলে ধরেন।

8W6A6131ঐ দিন দুপুর ২.৩০টায় গ্লোবাল প্রতিনিধিদল গজঘন্টা ইউনিয়নের রাজবল্লভ কমিউনিটি ক্লিনিক পরিদর্শন করেন। কমিউনিটি ক্লিনিকটি কার্যকর করার জন্য পরিষদের পাশে দাঁড়িয়েছে স্থানীয় উজ্জীবকগণ। ক্লিনিকে যাতে পর্যাপ্ত ঔষধ পাওয়া যায়, সেবা পাওয়া যায় এবং ইউনিয়নবাসী ক্লিনিকের সেবা নেয় সে লক্ষ্যে বাড়ি বাড়ি উঠান বৈঠক এবং জনসচেতনতা সৃষ্টিমূলক কার্যক্রম পরিচালনা করেন তারা। আগে ক্লিনিকে সেবা নিতে মাসে যেখানে ৫ থেকে ৬ জন আসত, সেখানে এখন আসে ৩০ থেকে ৩৫ জন আসে। ক্লিনিকে পর্যাপ্ত ওষুধ পাওয়া যায়, স্বাস্থ্যকর্মীরা নিয়মিত স্বাস্থ্যসেবা প্রদান করে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তৌফিকুল ইসলাম এবং ইউপি চেয়ারম্যান ও উজ্জীবক লিয়াকত আলী নিয়মিত ক্লিনিক পরিদর্শন করেন।

এছাড়া গ্লোবাল প্রেসিডেন্টসহ আমন্ত্রিত অতিথিগণ ১৫ নভেম্বর বিকাল ৪.০০টায় নারীনেত্রী মিনতি বেগমের উদ্যোগে পরিচালিত গর্ভবতী নারী ও প্রসূতি মায়ের অংশগ্রহণে পরিচালিত উঠান বৈঠক, ১৬ নভেম্বর সকাল ১০.৩০টায় নারীনেত্রীদের উদ্যোগে গড়ে উঠা ২০টি স্থানীয় সংগঠনের প্রতিনিধিদের সাথে মতবিনিময়, দুপুর ২.৩০টায় কোলকোন্দ ইউনিয়নে গণগবেষকদের উদ্যোগে গড়ে ওঠা ১৩টি স্থানীয় সংগঠনের প্রতিনিধিদের সাথে মতবিনিময় এবং বিকাল ৪.০০টায় ইয়ূথ লিডারদের উদ্যোগে পরিচালিত বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ ক্লাব আয়োজিত র‌্যালি ও আলোচনা সভায় অংশগ্রহণসহ আরও কয়েকটি সফল উদ্যোগ পরিদর্শন ও কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করেন।

এসব উদ্যোগ দেখে এবং কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করে গ্লোবাল প্রেসিডেন্ট ওসা স্কোজস্ট্রোম ফেল্ট সেখানে দেয়া এক বক্তব্যে বলেন, ‘আত্মশক্তিতে বলীয়ান হয়ে এবং জনগণকে সম্পৃক্ত করে উন্নয়ন কার্যক্রম পরিচালনা করায় আপনারা এখানে অনেক সফলতা অর্জন করেছেন। আমার বিশ্বাস, আপনাদের কার্যক্রম অব্যাহত থাকলে এ এলাকা তথা পুরো গংগাচড়া উপজেলা সম্পূর্ণভাবে দারিদ্র্যমুক্ত হবে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.